ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
ব্রেকিং নিউজ

এনএনবিডি ডেস্ক

১৭ নভেম্বর ২০২১, ১৫:১১

শশাঙ্ক-গডফাদারকে ছাড়িয়ে শীর্ষে জয়ভিম

22184_3.jpg
ছবি- সংগৃহীত
সত্য ঘটনা নিয়ে তৈরি হয়েছে তামিল সিনেমা জয়ভিম। পুলিশ হেফাজতে থাকা স্বামীকে নিখোঁজ ঘোষণার পর আদিবাসী এক অন্তঃসত্ত্বা নারীর করা মামলা নিয়ে এক আইনজীবীর দীর্ঘ লড়াইয়ের এক চমৎকার গল্প তুলে ধরা হয়েছে এতে।

জয়ভিম নামকরণ করা হয়েছে ভারতের সংবিধান প্রণেতা ও দেশটির প্রথম আইনমন্ত্রী বিআর আমবেদকারের স্লোগান থেকে। দলিত এই নেতার স্লোগানের অর্থ হচ্ছে— ভিম তুমি দীর্ঘজীবী হও। দলিতদের ওপর সর্বত্র নিপীড়নের চিত্র সুনিপুণভাবে উঠে এসেছে এই ছবিতে।

খ্যাতিমান নির্মাতা টিজে জ্ঞানভেলের এই চলচ্চিত্রে মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন তামিল তারকা অভিনেতা সুরিয়া। দলিত সম্প্রদায়ের ওপর নিপীড়নের ঘটনা নিয়ে নির্মিত তামিল ভাষার চলচ্চিত্রটি এখন ভারতজুড়ে আলোচনায়।

জয়ভিম প্রত্যাশার চেয়ে বেশি সাড়া ফেলেছে। ইন্টারনেট মুভি ডেটাবেজ (আইএমডিবির) দর্শক রেটিংয়ের শীর্ষে পৌঁছে গেছে চলচ্চিত্রটি। সাড়া জাগানো চলচ্চিত্র ‘দ্য শশাঙ্ক রিডেম্পশন’ এমনকি ‘গডফাদারকে’ পেছনে ফেলেছে তামিল এ ছবিটি।

ব্রিটিশ প্রভাবশালী গণমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আইএমডিবির ইউজার রেটিংয়ে সেরা এক হাজার সিনেমার তালিকায় ৯ দশমিক ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে জয়ভিম। চলতি বছরই ছবিটি মুক্তি পেয়েছে।

আইএমডিবির নিজস্ব রেটিংয়ে এতদিন শীর্ষস্থান ধরে রেখেছিল ক্লাসিক সিনেমা দ্য শশাঙ্ক রিডেম্পশন। এই সিনেমাটি এখন ইউজার রেটিংয়ে ৯ দশমিক ৩ পয়েন্ট নিয়ে জয়ভিমের পেছনে।

দর্শকদের বিচারে তার পরেই রয়েছে বহুল আলোচিত মাফিয়াদের জীবনধর্মী চলচ্চিত্র ‘দ্য গডফাদার’। ১৯৭২ সালের এ সিনেমার ইউজার রেটিং ৯ দশমিক ২।

চলচ্চিত্র সমালোচকরা বলছেন, বাস্তবধর্মী গল্পের সিনেমায় দর্শকদের ঝোঁক বাড়ছে, জয়ভিম তারই প্রমাণ।

প্রসঙ্গত ভারতের মোট জনসংখ্যার ২০ শতাংশ দলিত সম্প্রদায়ের এবং তাদের রক্ষায় আইন থাকলেও নিম্ন বর্ণের এই হিন্দুরা যুগ যুগ ধরে নির্যাতন-নিপীড়নের শিকার হচ্ছেন। গত ৩০ বছরেরও বেশি সময় ধরে তামিলনাড়ুর দলিত সম্প্রদায় মূলধারার মানুষের থেকে বঞ্চিত হয়ে আসছেন। তাদের বাস্তব জীবন সংগ্রাম উঠে এসেছে এই সিনেমায়।