ENGLISH  |  ARABIC  |  NNBDJOBS  |  BLOG
ব্রেকিং নিউজ

নিউজ ডেস্ক

২৪ নভেম্বর ২০২১, ১৩:১১

গাজীপুরে ৬ বছর আগে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের বলি হয়েছিল আরিফুল

22371_11123323.jpg
স্ত্রীর সাথে পরকীয়ার জেরে বাড়ির মালিক ওসমানের নেতৃত্বে বাড়ির ভাড়াটে আরিফুলকে বন্ধুদের নিয়ে খুন করেছিলেন। ৬ বছর আগে ঘটে যাওয়া ওই খুনের রহস্য উদঘাটন করতে ব্যর্থ হয়ে থানা পুলিশ আদালতে চুড়ান্ত প্রতিবেদন দিয়েছিল। পরে আদালত মামলাটির তদন্ত দেয় গাজীপুর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই)।

গত সোমবার দিবাগত রাত এবং গতকাল মঙ্গলবার ভোরে ৩ জনকে নগরীর কাশিমপুরের সুরাবাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে খুনের রহস্য উদঘাটন করে পিবিআই।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন সুরাবাড়ি এলাকার মৃত মজিবুর রহমানের ছেলে সাইদুর রহমান শাহীন সরকার (৫৮), একই এলাকার দেওয়ান মো. জহিরুল ইসলামের ছেলে মোমিরুল দেওয়ান (৪৮) ও হাসেম দেওয়ানের ছেলে শরীফ দেওয়ান। তাদের ৩ জনের বিরুদ্ধেই খুন, মাদক ও সন্ত্রাসীমূলক কার্যকলাপের ৩-৪ টি করে মামলা রয়েছে। গাজীপুর আদালতে পাঠানো হলে তারা খুনে জড়িত থাকার বিষয়ে স্বীকারেক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। তবে খুনের মূল পরিকল্পনাকারী ওসমান মোক্তারকে (৪০) এখনো গ্রেপ্তার করা যায়নি।

পিবিআইয়ের গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাকছুদের রহমান জানান, খুন হওয়া আরিফুল ইসলামের (৩৫) বাড়ি পাবনার চাঁটমোহরে। তিনি সুরাবাড়ির ওসমানের বাড়িতে ভাড়া থেকে একটি কারখানার কিউসি পদে চাকরির পাশাপাশি ঝুটের ব্যবসা করতেন। একপর্যায়ে তার সাথে ওসমানের স্ত্রীর পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ওসমান এলাকার চিহ্নিত চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসী। স্ত্রীর পরকীয়ার বিষয়টি জেনে যাওয়ায় আরিফুলকে খুনের পরিকল্পনা করে ওসমান। পরিকল্পনা অনুযায়ী ঘটনার রাতে ঝুট বিক্রির কথা বলে আরিফকে ডেকে আনে ওসমান। পরে গলা, অণ্ডকোষ ও পুরুষাঙ্গ কেটে হত্যা করে। ২০১৫ সালের ২৪ ডিসেম্বর সকালে সুরাবাড়ীর জারা সোয়েটার কারখানার পাশের বাঁশ বাগান থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।